cplusbd

নিউজটি শেয়ার করুন

রাঙ্গুনিয়ায় বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

1st Image

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি (২০১৯-০৬-১১ ০৫:১৩:৩৪)

স্কুলপড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দিয়েছে রাঙ্গুনিয়া উপজেলা প্রশাসন। একই সঙ্গে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তার বাল্যবিয়ে দিবে না মর্মে মুচলেকা নেওয়ায় হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের রাজারহাট বাজার সংলগ্ন হারুয়াল ছড়ি গ্রামে এই বাল্যবিয়ে পন্ডের ঘটনা ঘটে ।

ইউএনও'র কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের রাজারহাট বাজার সংলগ্ন হারুয়াল ছড়ি এলাকায় অপ্রাপ্তবয়স্ক এই কিশোরীর বাল্যবিয়ের আয়োজন করেছিল তার পরিবার। অথচ মেয়েটির ১৮ বছর পূর্ণ হয়নি, স্থানীয় একটি মাধ্যমিক স্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়ে সে। মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে তার আকদ হওয়ার কথা ছিল। বয়সের বাধা উপেক্ষা করে গোপনে বিয়ে সম্পন্ন করতে চেয়েছিল উভয় পরিবার। কিন্তু বিয়ের বিষয়টি জানতে পেরে কনের বাড়িতে গিয়ে হাজির হয় উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পূর্বিতা চাকমা।

ঘটনাস্থলে পৌঁছে মেয়েটিসহ উভয় পরিবারকে প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বুঝিয়ে এই বিয়ে বন্ধ করেন। একই সঙ্গে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না মর্মে স্টাম্পে মুচলেকা নেওয়া হয়।

এসময় তাঁর সাথে উপজেলার তথ্যসেবা কর্মকর্তা রোকসানা বেগম নার্গিস ও রাঙ্গুনিয়া থানার এসআই সুমন কুমার উপস্থিত ছিলেন।

এসিল্যান্ড পূর্বিতা চাকমা বলেন, ‘স্থানীয় গোপন সুত্রে খবর পেয়ে পদুয়ায় স্কুল ছাত্রীটির বাড়িতে যায় এবং তার অভিভাবককে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে বুঝিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এসময় প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তার বাল্যবিয়ের আয়োজন করা হবে না মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়।'