cplusbd

নিউজটি শেয়ার করুন

মিরসরাই ট্র্যাজেডির আট বছর আজ

1st Image

মিরসরাই প্রতিনিধি (২০১৯-০৭-১১ ১২:৩৩:১৩)

দেখতে দেখতে কেটে গেছে আটটি বছর। বুকের মানিক হারানোর আট বছর, সবাই ভুলে গেলেও আজও নিরবে কাঁদেন সন্তান হারা মা। ভুলতে পারেন না ছোট্ট ফুটফুটে সন্তানদের হারিয়ে। আজও নিঃশব্দে নিরবে কাঁদেন পঁয়তাল্লিশ জন মা। কাঁদেন ১১ গ্রামের শোকার্ত মানুষ।

মিরসরাই ট্র্যাজেডির অষ্টম বর্ষপূর্তি আজ।

সেই হূদয়স্পর্শী ঘটনা আজও মিরসরাইবাসীর মনকে ব্যথিত করে তোলে। এ ঘটনার আট বছর পেরিয়ে গেলেও তাদের স্মৃতি যেন এতটুকু পরিমাণ মুছে যায়নি। স্বজনহারা মানুষগুলোর করুণ আর্তনাদ আজও থামেনি। যেন আবুতোরাবের পিচঢালা পথে লেপ্টে আছে শোকচিহ্ন।

মিরসরাইয়ের ১১ গ্রামের আজও ভেসে আসে শোকার্ত মানুষের কান্না। যে কান্নার রোল থামানোর সাধ্য কারো নেই। এই দিনে মিরসরাইবাসী হারিয়েছিল ৪৫টি উজ্জ্বল নক্ষত্র। যে নক্ষত্রগুলো হয়তো একসময় আলোকিত করতো এই জনপদকে।

২০১১ সালের ১১ জুলাই মিরসরাই স্টেডিয়াম থেকে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল ফাইনাল খেলা শেষে একটি মিনি ট্রাকে করে বিজয়ী এবং বিজিত উভয় দলের খেলোয়াড় ও সমর্থকরা আবুতোরাব এলাকায় যাচ্ছিল। এক পর্যায়ে বড়তাকিয়া-আবুতোরাব সড়কের সৈদালী এলাকায় ৬০-৭০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে ডোবায় উল্টে যায় মিনিট্রাকটি। এরপর ডোবা থেকে উঠানো হয় ৪৫টি মৃতদেহ। রচিত হয় মিরসরাই ট্র্যাজেডি।